ফিলিপ হিউজের বিদায়ের পর , এবার বলের আঘাতে আম্পায়ারের মৃত্যু!

MD Majumder
By MD Majumder ডিসেম্বর ১, ২০১৪ ০৩:১৬

তৈয়বুর রহমান টনিঃ-

বলের আঘাতে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ফিলিপ হিউজের মৃত্যু শোক কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই একইভাবে এবার এক আম্পায়ারের মৃত্যু ঘটল। শনিবার ইসরায়েলে একটি ক্রিকেট ম্যাচে বলের আঘাতে প্রাণ হারান আম্পায়ার হিলেল অস্কার (৫৫)।ফিলিপ হিউজের শোকে এখনো আচ্ছন্ন পুরো পৃথিবী। এরই মধ্যে ক্রিকেট মাঠে আরেকটি মৃত্যুর খবর এসে আঘাত হানল। বলের আঘাতের শিকার হয়ে এবার মারা গেছেন ইসরায়েল জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক হিলেল ওয়াসকার। ৫৫ বছর বয়সী ওয়াসকার ইসরায়েলের দক্ষিণ বন্দর নগর আশদদে লিগের একটি ম্যাচে আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করছিলেন। সে সময় ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে ছুটে এসে সজোরে তাঁর চোয়ালে আঘাত হেনেছিল বলটি।Aumpear_Isral_Tony2014

তবে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, ঠিক সরাসরি বলের আঘাতে মৃত্যু হয়নি ওয়াসকারের। বলটি আঘাত করার পর তিনি হার্ট অ্যাটাকের শিকার হন। সংকটাপন্ন অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসকেরা বাঁচাতে পারেননি তাঁকে।

ইসরায়েল ক্রিকেট সংস্থার (আইসিএ) প্রধান নাওর গুডকার জানিয়েছেন, গতকাল ছিল এই মৌসুমের জাতীয় লিগের শেষ ম্যাচ। আর সেই ম্যাচেই এমন দুর্ভাগ্যের শিকার হতে হলো ওয়াসকারকে। ইসরায়েলি পুলিশ জানিয়েছে, বিষয়টি তারা তদন্ত করে দেখছে। যদিও প্রাথমিকভাবে পুলিশ এটিকে অপ্রত্যাশিত দুর্ঘটনা বলেই চিহ্নিত করেছে। বার্তা সংস্থা এএফপিকে গুডকার বলেছেন, ‘আমরা ভীষণ মর্মাহত। আমরা জেনেছি, একটা বল তাঁর দিকে ছুটে যাচ্ছিল, তিনি সেটা এড়ানোর চেষ্টাও করেছিলেন। কিন্তু পারেননি। পুরো বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ইসরায়েল ক্রিকেট সংস্থা এবং খেলোয়াড়েরা তাঁর স্মরণে শ্রদ্ধায় মাথা নত করে আছেন। তিনি অসাধারণ একজন মানুষ, ক্রিকেটার আর আম্পায়ার ছিলেন।’

১৯৮২ সাল থেকে পাঁচটি আইসিসি ট্রফিতে দেশের হয়ে খেলেছেন ওয়াসকার। ২০০৬ সালে সর্বশেষ খেলেছেন জাতীয় দলের হয়ে। বাঁহাতি স্পিন করতেন, ছিলেন হট অর্ডারের হার্ড হিটার ব্যাটসম্যানও। আশদদ ‘এ’ দলের হয়ে ২৪৪ রানের অপরাজিত একটা ইনিংস আছে তাঁর। যেটি স্থানীয় লিগের সর্বোচ্চ স্কোরের রেকর্ড। এমন অপ্রত্যাশিত মৃত্যুতে তাঁর পরিবার, দুই কন্যা শোকের সাগরে ভেসে যাচ্ছেন।

গুডকার অবশ্য সান্ত্বনা দিয়ে বলছেন, ‘এটা লাখে একবার ঘটে। কদিন আগে একজন অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড় এর শিকার হয়েছেন। জানি না, কীভাবে এটা আমাদের দুয়ারেও এসে আঘাত হানল।’

 

MD Majumder
By MD Majumder ডিসেম্বর ১, ২০১৪ ০৩:১৬
Write a comment

No Comments

No Comments Yet!

Let me tell You a sad story ! There are no comments yet, but You can be first one to comment this article.

Write a comment
View comments

Write a comment

Your e-mail address will not be published.
Required fields are marked*

সর্বশেষ খবর

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার ( বিকাল ৫:৪৫ )
  • ২১ নভেম্বর, ২০১৭
  • ৩ রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯
  • ৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ ( হেমন্তকাল )

বাংলা ক্যালেন্ডার

IMG_11152014_10_DEBDUT!